জার্মানিতে বিভিন্ন অফিসের সার্ভিস অভিজ্ঞতা এবং ভাষাগত সমস্যা

জার্মানিতে আসার পরই বিভিন্ন অফিসে দৌড়াদৌড়ি শুরু হয়ে গেল, ইন্সুরেন্স, ফরেইন অফিস, ফাইন্যান্স অফিস, ব্যাংক ইত্যাদি। পুরোপুরি মিশ্র অভিজ্ঞতা। সবার সাথে অভিজ্ঞতাগুলো না মিললেও আমার অভিজ্ঞতাগুলো একটু গুছিয়ে লেখার চেষ্টা করলাম আশাকরি আপনাদের কাজে আসবে। Continue reading জার্মানিতে বিভিন্ন অফিসের সার্ভিস অভিজ্ঞতা এবং ভাষাগত সমস্যা

জার্মানিতে প্রথম দিনগুলি ৩

ঘটনাটা খুবই বিব্রবকর, এয়ারপ্লেন মুড বন্ধ করে চালু করেও সুবিধা করতে পারলাম না, লাইকামোবাইলের বাপ দাদার চৌদ্দগুষ্টি উদ্ধার করতে করতে দেখলা একটু ইন্টারনেট পেলাম এবং সাথে সাথে বউয়ের মেসেজ পেলাম, আমি কেন এতক্ষন ধরে যোগাযোগ করতেছি না তার বিস্তারিত অভিযোগপত্র! আমি যে কি বিপদে আছি সেটা এখন বুঝানোর মত টাইমও নাই। কিন্তু বউ কি আর এগুলা বুঝে? এমন একটা দেশে আসছি যাদের ভাষা আমি বুঝি না আমার ভাষা তারা বুঝে না এটা যে কি পরিমান বিপদ সেটা এমন পরিস্থিতিতে না পরলে বুঝা সম্ভব না। Continue reading জার্মানিতে প্রথম দিনগুলি ৩

জার্মানিতে প্রথম দিনগুলি ২

আমি বললাম টিকেটের তো কোন সিস্টেম দেখলাম না। আমার কেমন যেন শিরশিরানি অনুভূতি তৈরি হল, মুন্নি সাহা থাকলে আমার অনুভূতি জিজ্ঞাসা করার এই সুবর্ন সুযোগ কখনোই হাতছাড়া করতো না এ বিষয়ে আমি ১০০% নিশ্চিত! আমি উল্টা উনারে ঝাড়ি লাগাই বললাম আপনি তো বইলা দেন নাই টিকিট কেমনে কাটে, আমিতো ভাবলাম বাসে কেউ ভাড়া তুলতে আসবে। ঠিকই তো আছে দেশে তো এমনেই টাকা তুলে আমার কি দোষ বলেন? পুরো BSAAG এর সব আর্টিকেল মোটামুটি পড়ে গিয়েছি কোথাও এরকম কিছু পাই নাই মাথায়ও আসে নাই, যাইহোক ইমদাদুল ভাই বললো এখনি ড্রাইভারের কাছে যান। ১৫ ঘন্টার মত জার্নি করে এসে বাসের নীচতলায় লাগেজ রেখে আরাম করে উপর তলায় বসে ছিলাম, হন্তদন্ত হয়ে নীচে নেমে ড্রাইভারের কাছে গেলাম Continue reading জার্মানিতে প্রথম দিনগুলি ২

জার্মানিতে প্রথম দিনগুলি ১

আমি এর আগে কখনো দেশের বাইরে যাই নাই। জার্মানীর ভিসাই আমার পাসপোর্টের প্রথম ভিসা। এয়ারপোর্টে কি করতে হয় কিভাবে করতে হয় তেমন ধারনাও ছিল না। জিতু অার আমার ভায়রা মেহেদী ভাই সাথে থেকে সবকিছু শেষ করে দিলো। উনাদের সাথে শেষ একটা ছবিও উঠলাম। Continue reading জার্মানিতে প্রথম দিনগুলি ১

জব নিয়ে জার্মানি যাওয়া – জার্মানি যাত্রা ১

এখন জব নিয়ে জার্মানী যাওয়াটা আগের তুলনায় অনেক সহজ, আপনার বাৎসরিক বেতন যদি ৪০০০০ ইউরো হয় তাহলে আপনি ব্লুকার্ড পাবেন। ব্লু কার্ড হল একটি ওয়ার্ক পারমিট ভিসা যা আপনাকে জার্মানীতে জব করার জন্য থাকার অনুমতি দিবে। ব্লু কার্ডের বিপরীতে আপনি আপনার স্ত্রী সন্তান নিয়ে জার্মানীতে বসবাস করতে পারবেন। ব্লু কার্ড সম্পর্কে আরও জানতে নিচের পোষ্টটি পরতে পারেন। জার্মানির পথেঃ৭ ব্লু-কার্ড, প্রবাসীদের জন্য জার্মানির দরজা। Continue reading জব নিয়ে জার্মানি যাওয়া – জার্মানি যাত্রা ১

SVG for Web Design

What is SVG

SVG stands for Scaleable Vector Graphics. If you work with graphics or have some idea about it you know what’s the advantage of working with vector graphics. We know about some vector format like eps, ai etc. svg is yet another format specially built for web to make two dimensional graphics.. The SVG specification is an open standard developed by the World Wide Web Consortium(W3C) since 1999. SVG is written by XML language which is pretty semantic but it’s very hard to write with hand though. All modern browsers support SVG. Checkout full support details here. Continue reading SVG for Web Design

Why Toptal seems great to me

I know Toptal from their awesome tutorials and blog posts. Many days ago when I was googling I found some tutorials written inToptal blog. Those tutorials were so helpful and when I was discussing with one of my designer friend he was telling that Toptal is actually a marketplace of most talented freelancers around the globe. Also heard that he failed to pass in Toptal screening process. It made me interested. Continue reading Why Toptal seems great to me

Grunt নিয়ে কিছু কথা ১

Grunt হল একটি টাস্ক রানার এই ডায়াগল শুনতে শুনতে মনেহয় আপনাদের মাথা ব্যাথা হয়ে গিয়েছে, তো টাস্ক রানারটাই বা আসলে কি? ধরুন আপনি ভাবছেন যে একটা সিএসএস ফাইলে কাজ করার থেকে অনেকগুলো সিএসএস ফাইল নিয়ে কাজ করবেন এবং তারপর কোন সিস্টেম ব্যবহার করে সেগুলো মার্জ করে একটা style.css ফাইল বানিয়ে নিবেন ইয়েস এই কাজটাই আপনাকে Grunt করে দিবে। Continue reading Grunt নিয়ে কিছু কথা ১

একটি স্বপ্নভঙ্গ! (বাইক দুর্ঘটনা)

প্রিয় জিনিসগুলোর মধ্যে আমার কম্পিউটার এবং বাইকই সবকিছু। সারাদিন কম্পিউটারে কাজ করে করে অথবা সারারাত ঘুমিয়েও যখন ক্লান্ত তখন বাইকটাই ছিল আমার বিনোদনের একমাত্র মাধ্যম। অনেক দিন রাতের ঘুম এবং কষ্ট উপেক্ষা করে জমানো টাকায় এটা কেনা। ইচ্ছে ছিল সারাদেশের প্রতিটি জেলা ঘুরবো এটা নিয়ে, কাজের ফাকে ফাকে একটু একটু করে সেটা হয়েও উঠছিল, বেশ কয়েকটি জেলা বাইক নিয়ে ঘোরার তালিকায় উঠেও এসেছিল, ঢাকা, নাটোর, সিরাজগঞ্জ, টাঙ্গাইল, পাবনা, কুষ্টিয়া, ঝিনাইদহসহ আরও বেশকিছু জেলা। Continue reading একটি স্বপ্নভঙ্গ! (বাইক দুর্ঘটনা)