পুরানো স্মৃতিকথা ২

সালটা সম্ভবত ২০০১ তখন ক্লাস ফাইভে পরি, একটা মেয়ে খুব জ্বালাইতো, ক্লাসে খোচাখুচি থেকে শুরু করে সবখানেই। নাম রিমা, পাবনার ভাঙ্গুরা উপজেলায় থাকি তখন, আব্বু তখন বড়ালব্রীজ শাখা অগ্রনীব্যংকের ম্যানেজার। মেয়েরা ছেলেদের থেকে একটু দ্রুতই ম্যাচিরউর হয়, বোকা আমি কিছুতেই পেরে উঠতাম না, একদিন ছোট ভাইকে নিয়ে ওদের স্কুলে (তখন ক্লাস সিক্সে এবং আমি বয়েজ স্কুলে এবং সে গার্লস স্কুলে) গেলাম ম্যাজিক শো দেখতে, আমাকে একা পেয়ে গালে একটা কষে থাপ্পর দিয়ে দৌড়িয়ে পালিয়ে গেল, আমি গালে হাত দিয়ে হতভম্ব হয়ে দাড়িয়ে থাকলাম  neutral

যথারীতি বন্ধুদের কাছে সাহায্য প্রার্থনা করলাম উল্টা তারা আমাকে নিয়ে অনেক হাসাহাসি করতে লাগলো  brokenheart আমার জেদ চেপে গেল, ওদিনই বিকেলে খেলছিলাম মাঠে, দেখি ও যাচ্ছে প্রাইভেট পড়ে। আর কই যাবে দৌড়ে গিয়ে কিল ঘুষি মেরে আমার মতই শুকনা (আমি আগে থেকেই শুকনা আরকি) মেয়েটার হারহাড্ডি গুরো করে দেয়ার মত অবস্থা। বেচারা মাঠের মধ্যে কেঁদেই ফেললো আমি আর কিছু না বলে মাঠের মাঝখানে চলে আসলাম। বন্ধুরা ঘটনার আকস্মিকতা সহ্য করার পর আমাকে বললো পালাই যাইতে। আমি বললাম বিনা কারনে মারি নাই যাবো না। খেলা ভন্ডুল হয়ে গেল। মেয়েটা কাদতে কাদতে বাড়ি চলে গেল। একটু চিন্তা হল যে যদি তার বাড়িতে বলে দেয় কিন্তু আমার মেজাজ সেরকম গরম ছিল, হাজার হলেও এতগুলা মেয়ের মধ্যে চর মেরেছে। এলাকার লোকজনও হতভম্ব হয়ে গেল কিন্তু কিছু বললো না কেউ হয়তো ভেবেই পাচ্ছে না শান্তশিষ্ট পোলাপানগুলার আজ হলটা কি!

আজ অনেকদিন পর পুরাতন বন্ধুদের কথা মনে পরছে, বসে বসে পুরাতন দিনগুলোর কথা ভাবছি, কতইনা মধুর ছিল সে দিনগুলো, আব্বুর শাসন বাদ দিলে সবকিছুই রঙ্গিন ছিল, এখনকার শহরের ছেলে মেয়েরা ওরকম দিন শুধু স্বপ্নেই ভাবতে পারবে। ভাঙ্গুরা থাকতে আসলেই অনেক মজা করেছি, নৌকা করে নদী পার হয়ে টাকা না দিয়ে পালাইছি, রাস্তা দিয়ে ভ্যান যাচ্ছে দৌড়ে উঠে বসে থেকেছি আবার যেই ভ্যানচালক টের পেয়ে গেছে সাথে সাথে দৌড়ে পলায়ন, মাঠে বসে বসে কাচা ধানের শিশ চাবিয়েছি আরও কতকি  dream

বেশকিছুদিন আগে ভাঙ্গুরার এক পুরোনো বন্ধুর সাথে দেখা হয়েছিল, ওর কাছেই শুনলাম রিমার একটা মেয়ে হয়েছে এতদিনে স্কুলে যাওয়ার কথা  love, একটা ফোন নম্বর ছিল কথা বলা হয় নাই কোনদিন সেটা দিয়ে, ওটাও হারিয়ে ফেলেছি, থাকলে হয়তোবা পিচ্চির সাথে কথা বলা যেত  sad

ফিলিংস লাইক বুড়া হয়ে গেলাম নাকি  ….

পুরানো স্মৃতিকথা, কোন একদিন

সামনে পরীক্ষা আর আমি কিনা ঘুরে ঘুরে বেড়াচ্ছি। সারাদিন কম্পু গুতাই আর মটরসাইকেল নিয়া ঘুইড়া বেড়াই। এলাকায় আমার ব্যাপক সুনাম(নাকি দুর্নাম  thinking) আমি নাকি প্রচুর স্পিডে ড্রাইভ করি। মটর সাইকেলও একপিস ডায়াং ১২৫, ব্যাটার যা শব্দ। তারউপর এটার সাইলেন্সারে একটু কারিশমা ফলাইছিলাম যার ফলে সাউন্ডটা রকেটের আওয়াজে রুপান্তরিত হয়েছে। বন্ধুর বাবার মতে আমি নাকি রকেট চালাই। কাউরে পেছনে বসায়া ভয়ংকর সব টার্নিং নিয়া পেছনের পাবলিককে ভয় ধরায়া দিতে আমার যে খুব ভাল লাগে। আর টার্নিং এর সময়ই দেখা যায় বন্ধুর বাবা আর নাহয় আমার বাবার বন্ধু  dontsee সোজা বাড়িতে নালিশ। যাহোক বকবক অনেক হয়েছে।

আমি একটা ছাত্রও বটে পরীক্ষার আগে সাজেশন আর প্রাইভেট ব্যাপক ব্যস্ত হয়া যাই, সাইফ দি বস এর মতে আমি হলাম চালাক এবং জেট বিমান জাতীয় ছাত্র। তো এখন কি করা দরকার প্রাইভেট পড়া দরকার সামনে যে পরীক্ষা, কলেজে ক্লাসও যে করি নাই। দিনে ২ বেলা করে এডওয়ার্ডে আড্ডা দিয়েছি। তো নিলাম প্রাইভেট সকাল ৮ টার দিকে যাইতাম পড়তে।

কোন একদিন

শীতের সকাল কুয়াশাও দেখা যায়, আকাশটা দেখে ভাবতেছি দিনটা কেমন যাবে  thinking আম্মুর সাথে খাওয়া নিয়া বাগড়া বাধানো আমার পুরাতন অভ্যাস। কি কারনে যেন খাওয়া পছন্দ হয় নাই। রাগ করে একটা ডিম সেদ্ধ করে খালি পেটে খেয়েই চললাম কলেজে। মটর সাইকেলটা নিলাম না বিশ্বরোডে দুদিন না চালিয়ে যদি বাবার মনটা একটু পাওয়া যায়  dream  আপনারাই বলেন একজন পুরোদস্তুর রাইডার এর জন্য সক্কালবেলা হল উপযুক্ত সময়,  whats_the_matter রোড ফাকা থাকে, এসময় ৯০-১০০ কিমি তো চালানোর মজাই আলাদা।

যাহোক প্রাইভেটে স্যার আসলো দেরী করে। পড়া হল এবার বাড়ি যাব, স্থান জনৈক রাস্তার মোর দাড়িয়ে আছি সিএনজি(আপনারা যারা ঢাকায় থাকেন তারা এই যানবহনকে লেগুনা বলেন) ধরব বলে। কেন যে গাড়িগুলা ঠিকমত আসে না  angry এত কেন অপেক্ষা করতে হবে! রাস্তা দিয়ে দেখি একটা মেয়ে আসছে এরকম গ্রামে এত সুন্দর স্মার্ট মেয়ে দেখে আমার একটু অবাকই লাগল, কিন্তু ঘড়িতে ১০ টা বাজলেও খিদেয় পেটের ১২ টা পার হয়ে গেছে তাই বেশি একটা নজর দিলাম না, এদিকে গাড়ি যেহেতু নাই তাই একটু ওদিকেই তাকিয়ে থাকি  neutral, যাহোক দেখলাম সুন্দর চেহারার একটি মেয়ে গার্লস স্কুলের ড্রেস পরিহিত, দুটো বেনিযুক্ত চুল, মাথার সামনে একটু চুল এনে ডিজাইন করা। সাথে একটু ছোট ছেলে ভাবলাম ছোট ভাই হবে। পিচ্চিটা হালকা লম্ফঝম্প দিতেছে। আমি তখন জ্যাকেট পরিহিত। কানে তো অলওয়েজ হেডফোন গান বাজতেছে লাভ সং এভারগ্রীন অ্যালবাম এর। শীতে হাত কিছুতেই আমি বাইরে রাখতে রাজি না  shame এদিকে পেটের বারোটা তাই চেহাড়ায় কোন নমনীয়তার সুর নেই, দুটো হাত পকেটে গুজেঁ মুখে একরাশ বিরক্তি নিয়ে আমি মেয়েটার দিকে তাকিয়ে। আমার মনে কোন ইমোশন নাই দায়িত্বপালন করতেছি আরকি এরকম ভাব। আমাকে পাস করে চলে গেল মেয়েটি। আমি আবার গাড়ি খুজতে লাগলাম। মনে হল একবার দেখি না পেছনে তাকিয়ে,  না না তোমার তো প্রেম ভালবাসার প্রতি আগ্রহ থাকার কথা না  shame তুমি হলা একটা যান্ত্রিক মানুষ এসব ফালতু কামে তোমার আগ্রহ থাকার কোন মানেই হয় না। আরে বাবা আমিকি প্রেম করব নাকি? এমনি দেখব আরকি। তাইলে তাকাও  wink তাকাইলাম, কট খাইছি  ghusi মাইয়াও দেখি ঠিক সময়মত তাকাইছে আমার দিকে  ghusi দুজনেই কট। তারাতারি উভয়ই উভয়কে সামলে নিলাম। ধুর ক্যান যে তাকাইলাম   cry ওয়েটটাই আর থাকল না  angry

সিএনজি চলে এসেছে, আমি আর দেরি করলাম না উঠে পরলাম। কিছু তো একটা করতে হবে  thinking গানগুলা কেন যেন ভাল লাগতেছে না। কিছুদিন হল একটা নাটক দেখছিলাম নাম হল এক্স ফ্যাক্টর, প্রথম দর্শনে প্রেম এর কথাটা মাথায় আইল। মাথার মধ্যে এটাই ঘুরতে লাগল। ধুর আর থাকা গেল না।

ফোন দিলাম বন্ধুরে

আমিঃ যেখানেই থাক ২০ মিনিটের মধ্যে রেডি হও একযায়গায় যেতে হবে বন্ধুঃ কোথায় ?

আমিঃ যেখানেই হোক আমি বাইক নিয়া হাজির হচ্ছি। বন্ধুঃ আমিতো এখনও ঘুমাইতেছি খাইনাই।

আমিঃ আমি অতশত জানি না আমি তোমার বাসায় আসতছি, গেট রেডি! বন্ধুঃ আচ্ছা ঠিক আছে!!

বাসায় আসলাম হাপুর হুপুর খাইলাম বাইকটা বের করলাম এবং বন্ধুকে তুলে নিয়ে ১০ কিমি জার্নির জন্য রোডে উঠলাম, মিটারের কাঁটা ৮০ তে স্থির হল পুরা চ্যালেঞ্জ নিবিনা সালা  cool

How to install plugins in Sublime Text

Sublime is one of the popular text editor. Recent version is Sublime 3. I really love this text editor very much, may be Sublime has all popular features. I was using notepad++ which is the most used text editor. Don’t be late just download the latest version of Sublime Text from here. Now it is Sublime 3 Beta. Its beta but good enough to use. Its cross Platform and don’t need to get pain if you are linux or MAC user.

for ubuntu and ubuntu debian destro users, install it from PPA by entering these commands on terminal,

user@pcname:~$ sudo add-apt-repository ppa:webupd8team/sublime-text-2
user@pcname:~$ sudo apt-get update
user@pcname:~$ sudo apt-get install sublime-text

sublime-window

So this is your sublime text 3 window.

Now go here to get the installing code of sublime package control. You will see two box with the installation code. Copy the code which match with your version. Also I mentioned the code and you can copy from below.

Sublime Package Control for Sublime Text 3 

import urllib.request,os; pf = 'Package Control.sublime-package'; ipp = sublime.installed_packages_path(); urllib.request.install_opener( urllib.request.build_opener( urllib.request.ProxyHandler()) ); open(os.path.join(ipp, pf), 'wb').write(urllib.request.urlopen( 'http://sublime.wbond.net/' + pf.replace(' ','%20')).read())

Sublime Package Control for Sublime Text 2

import urllib2,os; pf='Package Control.sublime-package'; ipp = sublime.installed_packages_path(); os.makedirs( ipp ) if not os.path.exists(ipp) else None; urllib2.install_opener( urllib2.build_opener( urllib2.ProxyHandler( ))); open( os.path.join( ipp, pf), 'wb' ).write( urllib2.urlopen( 'http://sublime.wbond.net/' +pf.replace( ' ','%20' )).read()); print( 'Please restart Sublime Text to finish installation')

Copy the code, go View > Show Console (Ctrl+`), paste the code in the box appeared below and press enter. A small process will start, wait until finish it.

sublime-consol

Sublime Console

You are almost done, restart Sublime and press Ctrl+Shift+P and you will see a box appeared like below

sublime-package-control

Type “Package” and you will see the package control options, now select “Package Control: Install Package” and you will see the available packages like below.

sublime-plugins

Type your keyword, select a plugin and press Enter. It will be installed to your system and then you will see a message at the very bottom of sublime.

plugin-installed-in-sublime

Now install your essentials plugins by sublime package control.

HERE IS A VIDEO TUTORIAL

DON’T FORGET TO WATCH THE FREE COURSE.

Perfect Workflow in Sublime Text 2

Here Henrique Barroso Listed some essential Plugins for Sublime

GETTING STARTED WITH SUBLIME TEXT 3: 25 TIPS, TRICKS, AND SHORTCUTS

Happy Subliming 😀

photography without any logic

Thanks to Mehedee83 bro for your long exposure shot 🙂

  • another-long-exposer-test-by-mehedee83
    by
  • asifsaho-asif-nawaz
    by
  • beside-parliament-asifsaho-asif-nawaz
    by
  • long-exposer-test-by-mehedee83
    by
  • marsh-beside-mirpur-dohs
    by
  • moon-shoot
    by
  • moon
    by
  • our-parliament
    by
  • playing-with-cloud
    by
  • speed-for-raising-speed-in-coding
    by

 

How to make a virtualhost (another folder like htdocs)

Was in a awkward situation! Nomally I use my desktop computer and its a pain when I need files from laptop, I started using dropbox for file sharing but it’s not possible to sync my localhost folder via dropbox. Got a solution by adding a virtualhost (a new folder which will act like htdocs) which will stay in dropbox. Pretty easier way to share codes.

1. Open the file with notepad or any text editor.

 C:\xampp\apache\conf\extra\httpd-vhosts.conf

2. Copy and paste below codes at the end of the file.

<VirtualHost *:80>
  ServerAdmin info@asifsaho.me
  DocumentRoot "D:/Dropbox/Project"
  ServerName projects.me
  ServerAlias www.projects.me
  ErrorLog "logs/projects.me-error.log"
  CustomLog "logs/projects.me-access.log" combined
<Directory "D:/Dropbox/Project">
  Options Indexes FollowSymLinks Includes ExecCGI
  AllowOverride All
  Order allow,deny
  Allow from all
  Require all granted
</Directory>
</VirtualHost>

– Change the DocumentRoot value with your folder link which is standing in dropbox.

– Change the ServerName to the address (without www.) which should be used to open the folder (like: localhost)

– ServerAlias should be same as ServerName but with “www.”

– Also you can edit ErrorLog and CustomLog format if you wish.

 

Now open the hostfile (C:\Windows\System32\Drivers\etc) and add a line like below (change the address as your need).

127.0.0.1 www.projects.me projects.me

NB: You may not save the hostfile directly, you can copy it to desktop then replace the old file.

Here is a tutorial about troubleshooting, don’t forget to review if get any problem.

জেকুয়েরী প্লাগিন কি কি কারনে কনফিক্ট করে এবং বিরত রাখার উপায়

আসলে প্রচুর জেকুয়েরী প্লাগিন নিয়ে কাজ করছি এখন, মেজাজটা মাথায় উঠে যখন দেখি একটার সাথে আরেকটা পেচায় নিয়া হ্যাং করে বসে আছে, তো কিছু জিনিস শিখলাম যেগুলো মাথায় রাখতে হয় প্লাগিনগুলো ইমপ্লিমেন্ট করার সময় এবং কিছু ফিক্সিং সিস্টেমও শিখলাম। এই টপিকের উদ্দেশ্য হল সেই ট্রিকগুলো একত্র করা আমি আমার জানা ট্রিকগুলো আপডেট করতে থাকবো এবং টপিকের রিপ্লাইতে আপনারা আপনাদের জানা ট্রিকগুলো দিলে আমি আপডেট করে দিবো, আশাকরি আমার মত পোলাপানদের জন্য এই টপিকটা একটা ডক হিসেবে কাজ করবে।

সাধারনতো জেকুয়েরী প্লাগিনগুলোর কোডে পাচটা জিনিস থাকে যেগুলো গুরুত্বপূর্ন, CSS, jQuery Library, Plugin jQuery Library, Trigger/Initialization আর Source Image and others..

ইমপ্লিমেন্টের সাধারন নিয়ম,

1) প্রথমে জেকুয়েরী লাইব্রেরী ফাইলটাকে HTML পেজে ইনসার্ট করে ফেলুন, <script> ট্যাগ দিয়ে এটা কিভাবে করতে হবে তা নিশ্চই পাঠকগন জানেন tongue

2) এবার প্লাগিনের লাইব্রেরীটা জেকুয়েরী লাইব্রেরীর পরে যেকোন যায়গায় ইনসার্ট করুন।

3) একটা ছোট ইনিশিয়ালাইজেশন বা ট্রিগার যাই বলি না কেন এটা জেকুয়েরী লাইব্রেরীর পরে ইনসার্ট করুন, যদি

$(document).ready(function() {
  // Handler for .ready() called.
});

এই ফাংশন ইউজ করেন তাহলে অবশ্য এই পার্টে সিরিয়াল মেইন্টেন করার দরকার নেই, কারন এই ফাংশন/মেথডের কাজই হল ডকুমেন্ট পূর্ন লোড হবার পর ভেতরের পার্টটাকে এক্সিকিউট করা।

4) সিএসএস ফাইলটাকে লোড দিন, এটা সাধারনতো কনফ্লিক্ট করে না তাই ঝামেলা কম, তারপরও করলে বুঝতে পারবেন এবং ক্লাসগুলো চেঞ্জ করে দিলেই সমস্যা ক্লিয়ার।

5) এবার ডকুমেন্টেশন দেখুন এবং সেই মোতাবেক HTML মার্কআপ করুন, ডেমো পেজ থেকে ডিরেক্ট কপি করতে পারেন।

6) এক্সারনাল ইমেজ এবং অন্যান্য জিনিসগুলো ঠিকমত লিংক হয়েছে কিনা চেক করে দেখুন এবং ঠিক করে দিন।

ব্যাস এইতো, কিন্তু সমস্যা হল যখন সারা ঘর লেপে দেখা যায় ঠিকঠাক নাই বা আরেকটা প্লাগিনের সাথে কনফ্লিক্ট করছে।

 

এখন এব্যাপারেই কিছু টিপস।

  • ব্যাতিক্রম আছে কিনা জানি না বাট আমার জানামতে প্লাগিনের জন্য যে স্পেসিফিক লাইব্রেরী থাকে সেটা সবসময় জেকুয়েরী লাইব্রেরীর পরে লোড নিশ্চিত করতে হবে অথবা কনফ্লিক্ট হবে নিশ্চিত থাকেন (উদাহারন হিসেবে বুটস্ট্রাপের লাইব্রেরীর নাম বলা যেতে পারে)
  • ধরুন নেভিগেশন ড্রপডাউন ইউজ করেছেন আর তার নীচে স্লাইডার, z-index এ যদি স্লাইডারের ভেলু বেশি থাকে অর্থাৎ স্লাইডার উপরে শো হয় তাহলে আপনার ড্রপডাউনের ভবিষৎ ঘুটঘুটে অন্ধকার, তাই Z-index চেক করে দেখবেন ভাল করে আসলেই যার উপরে থাকার কথা সেটা উপরে স্টে করছে কিনা। জিনিসটা একটু আগে বাবর ভাই শিখাইলো
  • অনেক সময় একটি প্লাগিন অনেকগুলো লাইব্রেরী ইউজ করে এবং ইমপ্লিমেন্ট করার পর ঝামেলা সৃষ্টি করে, প্লাগিনগুলোর ডেমো পেজের কোডগুলো দেখুন যে তারা ঠিক কোন লাইব্রেরীর পর কোনটা লোড দিয়েছে, আপনিও ঠিক সেই সিরিয়াল মেইন্টেন করুন।
  • এরপরও সমস্যা পরিলক্ষিত হয় সেক্ষেত্রে প্লাগিনগুলোর লাইব্রেরী উল্টাপাল্টা করে দিয়ে দেখুন।
  • কনসোলে চোখ রাখুন, ক্রোমে f12 চাপলে ডেভলপার অপশন আসবে, ওখানে কসসোলে জাভাস্ক্রিপ্ট এররগুলো দেখায় যা আপনাকে একটা গাইডলাইন দিতে পারবে।

 

এবার বড় ভাইয়েরা শুরু করেন আমি আপডেট দিতে থাকি  big_smile

Reduce Sever Request by converting image to Base64 string

What is base 64?

Wiki says,

Base64 is a group of similar binary-to-text encoding schemes that represent binary data in an ASCII string format by translating it into a radix-64 representation. The term Base64 originates from a specific MIME content transfer encoding.

 

Why we will use base 64?

In a website we use many image small images, those images are not heavy weight but browser make one HTTP request per file while its loading. Its very bad, We should try always to make less HTML request.

 

No need to tell more just go here  and submit your image and you will see the code with two format, one for HTML and one for CSS.

Copy and paste then Cheers (y)

How to colorize a image with CSS

Actually I didn’t find any cross-browser way to colorize a image by CSS.

why we need this? actually I am building a theme and used some map and icons in the theme, when I am creating different color scheme of the theme I thought how about it if I can change the color of the map without using more image?

Don’t worry we will use the transparency feature of PNG file.

Hope you have Photoshop or its cool if you are using GIMP. Open it and open the image. Make transparent the area which will be colorized and fill the other area with background color of your site.

Click here to see the image.

And example is below. I have applied green color via CSS and its working.

 

———————————————————————————————————————-

Just add a background color via CSS, below a example with inline CSS,

<img style="background: #84B231;" alt="" src="http://asifsaho.me/web/app/uploads/2013/07/transparent-BangladeshMap.png" width="283" height="285" />

Ceers!

What to do when you get unexpected feedback on oDesk

I am one of an admin of oDesk help facebook group which is the largest unofficial freelancing community in Bangladesh. Since I am contributing there a common question I heard “Got bad feedback in oDesk but client appreciated my work,  Now what to do?”

Normally as oDesk rule it’s not possible to remove this feedback rating and comment but you can hide your clients comment anytime without. Actually comment isn’t a big problem. Feedback rating is much important to get new job. I was also seeking the answer of the question when I got a bad rating from my client. He appreciated my work, suddenly he stopped the contract with the reason “Project was canceled” and left a 2.35 rating. Which was negatively effective in my average rating, it was down.

You can open dispute if you are confident that client violate oDesk ratings and feedback regulations.

Now lets see what is the rule,

oDesk rating and feedback regulations,

  • Falsifying feedback for yourself or another user, by any means, to artificially raise or lower your own or another’s feedback score.
  • Withholding deliverables or payment to manipulate a user into leaving the desired feedback comment or rating.
  • Threatening to leave negative feedback to coerce a contractor to perform a given task.
  • Threatening to leave negative feedback to coerce a client to make a payment.
  • Offering to sell or buy services in exchange for good feedback, trading feedback undeservedly or buying feedback.

Read details Here

When I suggested to dispute against the dishonest feedback rating to oDesk Support then maximum of them was failed to win the case! it was too sad news for them as well as for me. I was trying to find out what’s wrong with them. The main problem is maxim prosecution in this type of case ware failed to present the situation correctly. For your kind information, you won’t get a good hospitality from any support if you can’t present your speech. I can guarantee about your winning if you can prof that your client was dishonest/violate the oDesk policy.

I am going to give you some tips regarding “how to make an effective dispute”

When I got bad feedback from my client I got some effective suggestion from Mamun Srizon. I just suggest to follow as he said. First I wrote my total feedback to oDesk like below and then I describe my speech regarding to the topic “why the feedback violate oDesk policy” 

My Client left 2.35* rating, where

Skills = 2 Quality = 3 Availability = 1 Deadlines = 3 Communication = 1 Cooperation = 4

There are 6 items, Skills, Quality, Availability, Deadlines, Communication and Cooperation, I have written 6 small paragraph regarding this topic. Don’t forget to share prof. Chat history screenshots, Call record**, mail screenshots etc. For presenting fake prof,  you have to be ready to be banned, oDesk verify all prof! Anyway I given 20-22 screenshots of chat/mail history where client told about his satisfaction about my work. oDesk took it seriously and the ticket was forward to special branch to review, after some days I got the new news that the feedback was withdrawn.

 

Must read threads before disputing,

Can I dispute negative feedback

I believe my client is abusing the feedback system. What can I do?

Can I dispute a feedback score or comment

What are the ratings and feedback regulations

Tips to be winner,

  •  Be confident that you are ready to prof that you are right and your client was wrong.
  • Write Logical speech/ not emotional.
  • Mention line no and image name of screenshots, better you can mark the important text in the screenshot.

Don’t forget to share your experience…

**I use Skype Call Recorder in windows to record all calls.